শনিবার, জুন ১১, ২০২২

শিরোনাম >>

টেক্সাসের ঘটনায় পুলিশের ভূমিকা নিয়ে যা বললেন পুলিশ প্রধান

ডেস্ক রিপোর্ট   |   শনিবার, ১১ জুন ২০২২ | 99 বার পঠিত | প্রিন্ট

টেক্সাসের ঘটনায় পুলিশের ভূমিকা নিয়ে যা বললেন পুলিশ প্রধান

ফাইল ছবি

টেক্সাসের স্কুলে গোলাগুলির ঘটনায় পুলিশের দায়িত্ববোধ নিয়ে সমালোচনার উত্তর দিয়েছেন স্থানীয় পুলিশ প্রধান পেটে আরাদোন্দো। তিনি দাবি করে বলেন, পুলিশ কর্মীরা সেদিন নির্দ্বিধায় নিজেদের জীবন বাজি রেখেছিলেন। টেক্সাস ট্রিবিউন পত্রিকাকে দেওয়া সাক্ষাতকারে আরাদোন্দো বলেন, ‘গোলাগুলির ঘটনা নিয়ন্ত্রণের দায়িত্ব সম্পূর্ণভাবে তাদের ওপর ছিল, সে বিষয়ে তিনি জানতেন না। তিনি জানতেন এটি নিয়ন্ত্রণে অন্য কাউকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। ’

এরআগে গত ২৪ মে টেক্সাসের উভালদের রব এলিমেন্টারি (প্রাথমিক) স্কুলে বন্দুকধারীর গুলিতে ১৯ জন শিশু শিক্ষার্থী ও দুজন শিক্ষক নিহত হন। ঘটনার বর্ণনা প্রকাশিত হওয়ার পর দেখা যায় শ্রেণিকক্ষে বন্দুকধারীর সঙ্গে শিক্ষার্থীরা দীর্ঘসময় আটকে থাকার পরও পুলিশ কক্ষটিতে প্রবেশ করতে দেরি করেছে। অভিযোগ উঠেছে, পুলিশ তাদের উদ্ধারের পরিবর্তে কালক্ষেপণ করেছে। এসব নিয়ে পুলিশের দায়িত্ববোধ নিয়ে সাধারণ মানুষের সপ্তাহব্যাপী সমালোচনার পর মুখ খুলেছেন সংশ্লিষ্ট স্কুল ডিস্ট্রিক্টের পুলিশ প্রধান পেটে আরাদোন্দো।

প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছিল আরাদোন্দো পুলিশকে শ্রেণিকক্ষে প্রবেশ করতে নিষেধ করেছিলেন। কিন্তু এ দাবি অস্বীকার করে পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, তার ধারণা স্কুলের কক্ষের ভেতরে একজন সক্রিয় বন্দুকধারী আছেন কথাটি সবাই জানার পর থেকেই পরিস্থিতি পরিবর্তন হতে থাকে। তখন থেকে শিশুদের বাঁচাতে কোনো পুলিশ কর্মীই নিজেদের জীবন বাজি রাখতে কার্পণ্য করেননি।

গণমাধ্যমের খবরে জানা যায়, ঘটনার সময় দুটি সংযুক্ত শ্রেণিকক্ষে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ওই বন্দুকধারী প্রায় এক ঘণ্টা আটকে ছিল। এ সময় পুলিশ কাছাকাছি করিডোরে থাকলেও তারা কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। পরে সীমান্তরক্ষা বাহিনীর এজেন্টরা আসার পর কক্ষে প্রবেশ করে বন্দুকধারীকে গুলি করে হত্যা করেন।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১১:৪৯ এএম | শনিবার, ১১ জুন ২০২২

manchitronews.com |

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

A H Russel Chief Editor
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়

5095 Buford Hwy, Suite H Doraville, Ga 30340

E-mail: editor@manchitronews.com