• শিরোনাম

    সেই পুলিশ পরিদর্শকের বিরুদ্ধে হুইপ সামশুল হকের মামলা

    মানচিত্র ডেস্ক | ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ২:০১ অপরাহ্ণ

    সেই পুলিশ পরিদর্শকের বিরুদ্ধে হুইপ সামশুল হকের মামলা

    ছবি-সংগৃহীত

    সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ‘মিথ্যা ও বানোয়াট’ তথ্য উপস্থাপনের মাধ্যমে মানহানি করার অভিযোগে সাময়িক বরখাস্ত হওয়া পুলিশ পরিদর্শক সাইফ আমিনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন জাতীয় সংসদের হুইপ সামশুল হক চৌধুরী।

    বুধবার সাইবার ট্রাইব্যুনালে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলাটি করা হয়।

    গত ২০ সেপ্টেম্বর রাত ১টা ৫৭ মিনিটে নিজের ফেসবুক ওয়ালে ‘ক্লাব-জুয়া-সাংসদ এবং ওসি’ শিরোনাম একটি স্ট্যাটাস দেন পুলিশের পরিদর্শক সাইফ আমিন।

    ওই স্ট্যাটাসে তিনি চট্টগ্রাম আবাহনী ক্লাবের জুয়ার আসর থেকে গত পাঁচ বছরে ক্লাবটির মহাসচিব ও হুইপ সামশুল হক চৌধুরী ১৮০ কোটি টাকা আয় করেছেন বলে দাবি করেন।

    মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে হুইপ সামশুল হক চৌধুরী সমকালকে বলেন, ‘চট্টগ্রাম আবাহনী ক্লাবের দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে ক্লাবটির উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছি। কোনোদিন ক্লাব থেকে একটি পয়সাও নেইনি।’

    আবাহনী ক্লাবে জুয়ার আসর বসে না দাবি করে তিনি বলেন, যেখানে জুয়ার আসরই বসে না, সেখানে জুয়ার আসর থেকে টাকা আয় হচ্ছে বলে মন্তব্য করা ষড়যন্ত্রের অংশ।

    চট্টগ্রামের পটিয়া থেকে নির্বাচিত এ সংসদ সদস্য বলেন, ‘ফেসবুকে এসব লিখে আমার মানহানি করার অপচেষ্টা করা হয়েছে। আমি প্রতিকারের জন্য সাইবার ট্রাইব্যুনালে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেছি।’

    এদিকে হুইপ সামশুল হক চৌধুরীর বিরুদ্ধে জুয়ার আসর থেকে ১৮০ কোটি টাকা আয়ের অভিযোগ আনা পুলিশ পরিদর্শক সাইফুল আমিনকে বুধবারই সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। এদিন পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের এক চিঠিতে তাকে সাময়িক বরখাস্তের কথা জানানো হয়।

    চিঠিতে বলা হয়, বিভাগীয় শৃঙ্খলা পরিপন্থি কার্যকলাপ, জনসম্মুখে পুলিশ বাহিনীর ভাবমূর্তি ব্যাপকভাবে ক্ষুণ্ন করা তথা অসদাচরণের দায়ে সরকারি তাকে চাকরি থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হলো।

    সাময়িক বরখাস্তকালীন সাইফুল আমিন রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি কার্যালয়ে সংযুক্ত থাকবেন এবং প্রচলিত বিধি মোতাবেক খোরাকি ভাতা পাবেন।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০৩১  
  • ফেসবুকে আমরা