• শিরোনাম

    শরীয়তপুর পৌর নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন চান নুরুল আমিন কোতোয়াল

    মানচিত্র ডেস্ক | ১০ ডিসেম্বর ২০২০ | ১:২২ অপরাহ্ণ

    শরীয়তপুর পৌর নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন চান নুরুল আমিন কোতোয়াল

    ছাত্রজীবন থেকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রানিত হয়ে ছাত্রলীগের বিভিন্ন গুরুত্বর্পূণ দায়িত্বপাল। চারদলীয় জোট সরকারের জুলুম-নির্যাতনের বিরুদ্ধে কথা বলতে গিয়ে ১৯টি মামলায় আসামি হয়েছে। দুইবার কারাবরণ করেছেন।  ১৫ ফেব্রুয়ারি প্রহসনের নির্বাচনের বিরুদ্ধে আন্দোলন করতে গিয়ে জেল খাটতে হয়েছে।বলছি, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ নুরুল আমিন কোতোয়ালের কথা।

    শরীয়তপুরের রাজনৈতিক অঙ্গনে এক পরিচিত মুখ। এবার তিনি শরীয়তপুর পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন চান। ইতিমধ্যে নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী হতে নানাভাবে কেন্দ্রের মনোযোগ আকর্ষণের চেষ্টা করছেন তিনি। মনোনয়নের জানান দিতে তার সমর্থক নেতাকর্মীরা প্রচার প্রচারণাও শুরু করেছেন।

    জানা গেছে, মোহাম্মদ আমিন কোতোয়াল ১৯৬৬ সনের ১১ ডিসেম্বর শরীয়তপুর শহরের পালং গ্রামে সম্ভ্রান্ত কোতোয়াল পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম আবদুল আজিজ কোতোয়াল। মা সখিনা খাতুন। ১৯৮১ সনে পালং উচ্চ বিদ্যালয় শাখা ছাত্র লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে ছাত্রলীগের রাজনীতিতে যুক্তহন মোহাম্মদ নুরুল আমিন কোতোয়াল ।

    এরপর ১৯৮৪-৮৫ সনে শরীয়তপুর সরকারী কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচিত হন। ১৯৮৭-১৯৯০ সনের ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের ঢাকার ডেমরা থানার সদস্য সচিবের দায়িত্ব পালন করেন তিনি। ১৯৯২-১৯৯৩ সনে শরীয়তপুর সরকারী কলেজ ছাত্র-ছাত্রী সংসদ নির্বাচনে ভিপি নির্বাচিত হন। ১৯৯১-১৯৯৬ পর্যন্ত শরীয়তপুর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন তিনি। গত পৌরসভা নির্বাচনেও তিনি দলীয় মনোনয়ন চেয়ে ছিলেন।তবে মনোনয়ন না পেয়েও দলীয় সিদ্ধান্তের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করে নির্বাচনে অংশ নেয়া থেকে বিরত থাকেন।

    মোহাম্মদ নুরুল আমিন কোতোয়াল জানান, ছাত্রজীবন থেকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রানিত হয়ে ছাত্রলীগের বিভিন্ন গুরুত্বর্পূণ দায়িত্বপাল করেছি। কখনো কোন লোভ-লালসা বঙ্গবন্ধুর আদর্শ থেকে বিচ্যূত করতে পারেনি। আওয়ামী লীগের দুঃসময়ে আমরা বঙ্গবন্ধু কণ্যা, দেশরত শেখ হাসিনার নেতৃত্বে জীবনের ঝুকি নিয়ে অত্যাচার অবিচার জুলুম নির্যাতন সহ্য করে দলকে শক্তিশালী করতে ভূমিকা রেখেছি। চারদলীয় জোট সরকারের জুলুম-নির্যাতনের বিরুদ্ধে কথা বলতে গিয়ে ১৯টি মামলায় আসামি হয়েছে। দুইবার কারাবরণ করেছি। ১৫ ফেব্রুয়ারি প্রহসনের নির্বাচনের বিরুদ্ধে আন্দোলন করতে গিয়ে জেল খেটেছি।

    তিনি জানান, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফল নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল। গ্রামের মানুষের কাছে শহরের সকল সুযোগ সুবিধা পৌছে দিতে কাজ করে যাচ্ছে জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার। এ সুযোগে পিছিয়ে পড়া শরীযতপুর পৌরসভাকেও একটি আধুনিক ও ডিজিটাল উন্নত নাগরিক সুবিধা সম্বলিত পৌর সভায় রুপ দিতে আমি মেয়র হিসেবে মনোনয়ন প্রত্যাশা করছি।

    তিনি আরো জানান, আমি সন্ত্রাস, মাদক ও চাঁদাবাজী মুক্ত, আধুনিক, পরিস্কার পরিচ্ছন্ন একটি মডেল পৌরসভা হিসেবে শরীয়তপুর পৌরসভাকে গড়ে তুলতে চাই। আমি মনোনয়ন পেলে বিপুর ভোটে বিজয়ী হবো। এবং অবহেলিত শরীয়তপুরকে একটি শান্তির নগরী হিসেবে প্রতিষ্ঠা করবো। দ্বিতীয় ধাপে আগামী ১৬ জানুয়ারী শরীয়তপুর পৌরসভার ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    ভিপি নুরের বিলাসী জীবন!

    ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯

    আর্কাইভ

    সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আমরা

  • You cannot copy content of this page