• শিরোনাম

    মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের দিনগণনা শুরু

    মানচিত্র ডেস্ক | ০৪ নভেম্বর ২০১৯ | ৪:২৭ অপরাহ্ণ

    মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের দিনগণনা শুরু

    প্রতীকি ছবি

    রোববার থেকে  দিনগণনা শুরু হয়েছে আগামী বছরের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের। ভোটের ঠিক ১ বছর আগে ‘বিভক্ত ও ক্ষুব্ধ’ পুরো যুক্তরাষ্ট্র। ক্ষমতাসীন রিপাবলিকান থেকে শুরু করে বিরোধী ডেমোক্র্যাট নেতাদের মন্তব্য, ভাষা, ভাবভঙ্গিতে প্রকাশ পাচ্ছে বিরক্তির ছাপ। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নীতিতেই মূলত তারা ক্ষুব্ধ। আর জনগণের মধ্যে দেখা মিলছে বিভক্তির রেখা।

    ট্রাম্পের বিরুদ্ধে তোলা ডেমোক্র্যাটদের অভিশংসন তদন্তে নাগরিকরা দ্বিধাবিভক্ত। তবে পুনরায় জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী ট্রাম্প। রোববার তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘নির্বাচনে আমরা খুবই ভালো করছি। আশা করছি আবারও জিতব।’ বিরোধী ডেমোক্র্যাটিক দলও হোয়াইট হাউস দখলে নিতে জোর কামড় দিতে চাইছে।

    এএফপি জানায়, কংগ্রেসের নিুকক্ষ হাউজ অব রিপ্রেজেনটেটিভসে ট্রাম্পকে অভিশংসন তদন্ত সংক্রান্ত ভোটাভুটিতে বিভক্তি প্রকাশ পেয়েছে চরমভাবে। প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে তদন্তের পক্ষে ২৩২ জন এবং বিপক্ষে ১৯৬ জন ভোট দিয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে আগের তিনবারের কোনোবারই প্রেসিডেন্টকে অভিশংসনের পক্ষে এত ভোট পড়েনি।

    রিপাবলিকান নেতাদের সবাই ট্রাম্পকে সমর্থন দিলেও জনগণের আস্থা হারিয়েছেন তিনি। নতুন এক জরিপে দেখা গেছে, আমেরিকার অর্ধেক মানুষ ট্রাম্পের অভিশংসন চান। এনবিসি ও ওয়ালস্ট্রিটের জরিপ বলছে, ট্রাম্পকে অভিশংসন বা তাকে উচ্ছেদকে সমর্থন করছেন ৪৫ শতাংশ আমেরিকান। তিন সপ্তাহ আগের এক জরিপের চেয়ে নতুন জরিপে এ সমর্থনের হার ৬ শতাংশ বেড়েছে।

    যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন ২০২০ সালের ৩ নভেম্বর। ভোট সামনে রেখে ডেমোক্র্যাটিক নেতাদের ওপর একের পর এক তোপ দাগছেন ট্রাম্প। শুক্রবার মিসিসিপি রাজ্যের টুপেলোতে এক নির্বাচনী র‌্যালিতে তিনি বলেন, ডেমোক্র্যাটিক নেতারা মানসিকভাবে ঝগড়াটে এবং দলটির সম্ভাব্য প্রার্থী জো বাইডেন একজন ‘ঘুমন্ত বুড়ো’।

    বিরোধীরাও প্রেসিডেন্টকে উৎখাতের পরিকল্পনা নিয়েই মাঠে নেমেছে। রোববার ভার্জিনিয়ায় নির্বাচনী প্রচারণায় জো বাইডেন বলেন, আমাদের প্রধান লক্ষ্য ট্রাম্পকে অফিস থেকে উচ্ছেদ করা।

    ডেমোক্র্যাটিক দলের মনোনয়ন দৌড়ে এগিয়ে রয়েছেন এলিজাবেথ ওয়ারেন। সম্প্রতি জরিপে দেখা গেছে, ওয়ারেন ২২ শতাংশ, সিনেটর বার্নি স্যান্ডার্স ১৯, ইন্ডিয়ানার মেয়র পেটে বুটিগিগ ১৮ এবং বাইডেন ১৭ শতাংশ সমর্থন পাচ্ছেন। স্যান্ডার্সের মুখেও ট্রাম্পকে উৎখাতের সুর। রোববার মিনেসোতায় র‌্যালিতে বলেন, ‘তিনি (ট্রাম্প) আমাদের মধ্যে বিভাজন সৃষ্টির চেষ্টা করছেন। আমরা জনগণকে একত্র করছি।’

    জো বাইডেন ও তার ছেলের বিরুদ্ধে তদন্তের জন্য ইউক্রেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির জেলেনস্কিকে চাপ দেয়ার অভিযোগ ওঠে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে। এ নিয়ে তিনি অভিশংসন তদন্তের মুখে পড়েছেন। ডেমোক্র্যাটিক নিয়ন্ত্রিত হাউস তাকে অভিশংসনের সাক্ষ্য গ্রহণ শুরু করে দিয়েছে।

    বিশ্লেষকরা পূর্বাভাস দিচ্ছেন, হাউসে ট্রাম্প অভিশংসিত হলেও রিপাবলিকান নিয়ন্ত্রিত সিনেটে দায়মুক্ত হতে পারেন। ইউনিভার্সিটি অব ভার্জিনিয়ার সেন্টার ফর পলিটিকসের পরিচালক ল্যারি সাবাটো বলেন, সিনেটের মাধ্যমে ট্রাম্প অভিশংসিত হবেন, এটা কেউ সহজে বিশ্বাস করবে না।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    পৃথিবীর যে দেশে কোন সাপ নেই?

    ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

    আর্কাইভ

    সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আমরা