• শিরোনাম

    পৃথিবীর যে দেশে কোন সাপ নেই?

    মানচিত্র ডেস্ক | ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৪:১১ অপরাহ্ণ

    পৃথিবীর যে দেশে কোন সাপ নেই?

    প্রতীকি ছবি

    এমন কোনও দেশ আছে যেখানে সাপ নেই?‌ এই প্রশ্ন উঠছে কারণ সাপহীন দেশের দাবি উঠেছে বলে। তাহলে জানতে হবে কোন দেশ সেটি?‌

    জানা গেছে, উত্তর–পশ্চিম ইউরোপে অবস্থিত একটি দ্বীপ রাষ্ট্র হল আয়ারল্যান্ড। যার রাজধানী ডাবলিন আয়ারল্যান্ড দ্বীপের সবচেয়ে বড় শহর। এই দেশের আয়তন ৭০ হাজার বর্গ কিলোমিটার।

    অসংখ্য পাহাড়, নদী এবং হ্রদ নিয়ে গঠিত এই দ্বীপপুঞ্জ। আর এই দেশে শুধুমাত্র চিড়িয়াখানা বা ব্যক্তিগতভাবে সংগ্রহ করে রাখা ছাড়া কোনও সাপ নেই। সরীসৃপ বলতে এদেশে রয়েছে শুধু টিকটিকি।

    আয়ারল্যান্ড সর্পহীন দেশ হওয়ার কারণ কী? কথিত আছে, আয়ারল্যান্ডের সবচেয়ে প্রভাবশালী ধর্মপ্রচারকদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন সেন্ট প্যাট্রিক। আনুমানিক ৩৮৫ খৃষ্টাব্দে উত্তর ইংল্যান্ড অথবা দক্ষিণ স্কটল্যান্ডে জন্মগ্রহণ করেন তিনি।

    ১৬ বছর বয়সে প্যাট্রিক ডাকাত দলের হাতে অপহৃত হন। তারা তাকে আয়ারল্যান্ডে নিয়ে যায় এবং দীর্ঘদিন পর্যন্ত দাস হিসেবে কাজে লাগায়। তখন তিনি খৃষ্টধর্মে দীক্ষিত হন। ৬ বছর পর প্যাট্রিক ফ্রান্সে পালিয়ে আসেন।

    এখানে তিনি একটি আশ্রমে পড়াশোনা করেন এবং পরে আয়ারল্যান্ডে ফিরে এসে সেখানকার অধিবাসীদেরকে খৃষ্টধর্মের প্রতি আকৃষ্ট করতে থাকেন। তিনি আয়ারল্যান্ডের বিশপ হিসেবেও নিযুক্ত হন।

    আইরিশ রূপকথা অনুযায়ী, আয়ারল্যান্ডে খৃষ্টান ধর্ম প্রচার করার পাশাপাশি সেখান থেকে সব সাপ তাড়িয়ে দিয়েছিলেন সেন্ট প্যাট্রিক। ৪০ দিনের উপবাস তপস্যা করতে একটি পাহাড়ে ওঠার সময় সাপের ছোবল খান তিনি। এরপরেই সেখান থেকে সাপ নির্মূল করার সিদ্ধান্ত নেন।

    যেখানে যত সাপ ছিল তাদের তাড়া করে একটি শৈলচূড়ার উপর থেকে সমুদ্রে ফেলে দেন। তার পর থেকে আয়ারল্যান্ডে আর কখনও সাপ দেখা যায়নি।

    এমনকী ন্যাশনাল মিউজিয়াম অফ আয়ারল্যান্ডের প্রাকৃতিক ইতিহাস বিষয়ক গবেষক নাইজেল মোনাগান জানান, আয়ারল্যান্ডে সাপের জীবাশ্মও খুঁজে পাওয়া যায়নি। শুধু আয়ারল্যান্ড নয় নিউজিল্যান্ড, গ্রিনল্যান্ড, আইসল্যান্ড, আন্টার্কটিকাতেও সাপের তেমন একটা দেখা মেলে না।

    পরবর্তীকালে তিনটি প্রজাতির সাপের দেখা মেলে। এরা হল গ্রাস স্নেক, অ্যাডার স্নেক এবং স্মুথ স্নেক। আয়ারল্যান্ডে সাপ না থাকার বিষয়ে বিজ্ঞানীরা জানান, প্রায় ১০ হাজার বছর আগে তুষারযুগে বরফে ঢাকা ছিল আয়ারল্যান্ড।

    বরফযুগে আয়ারল্যান্ড এবং ইংল্যান্ড এতটাই হিমশীতল ছিল যে সাপের মতো কোনও ঠাণ্ডা রক্তের প্রাণীর বসবাসের উপযোগী ছিল না এই দেশ দুটিতে। রক্তে হিমোগ্লোবিনের মাত্রা বজায় রাখতে চারপাশের বস্তু থেকে তাপ গ্রহণ করতে হয় সাপের।

    বরফে ঢাকা আয়ারল্যান্ডে তাদের অস্তিত্ব বজায় রাখার জন্য তা সম্ভব ছিল না। পরবর্তী সময়ে হিমবাহ গলতে শুরু করলে মানসাগর দ্বারা ব্রিটেন থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় আয়ারল্যান্ড। তখন ব্রিটেনকে বাসস্থান হিসেবে বেছে নেয় কয়েকটি প্রজাতির সাপ।

    এই বিষয়ে লুইসিয়ানা স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাস্থ্যবিজ্ঞান কেন্দ্রের লুইসিয়ানা পয়জন সেন্টারের পরিচালক মার্ক রায়ান বলেন, আয়ারল্যান্ডে কোনও সাপ নেই। কারণ সেখানকার জলবায়ু তাদের বসতি গড়ে ওঠার পক্ষে অনুকূল নয়। যে সরীসৃপ প্রজাতিটি আয়ারল্যান্ডে বসতি গড়ে তোলে তারা হল টিকটিকি।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আমরা