• শিরোনাম

    টাইগারের দাম ৩০ লাখ টাকা!

    মানচিত্র ডেস্ক | ০৪ আগস্ট ২০১৯ | ১:১৭ পূর্বাহ্ণ

    টাইগারের দাম ৩০ লাখ টাকা!

    হাঁটা চলার সময় তার গম্ভীর ভাব। পা চলে ধীর গতিতে। ঝকঝকে পুরো শরীর। বেশ রাগ নিয়ে তাকিয়ে থাকে। আশেপাশে সঙ্গী তার তিন চারজন। নাম তার ‘টাইগার’। তবে সত্যিকারের টাইগার (বাঘ) নয়।

    পাবনার চাটমোহর উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের বৃ-গুয়াখড়া গ্রামের মিনারুল ইসলাম ফিজিয়ান জাতের এই গরুটির নাম দিয়েছেন ‘টাইগার’। গরুটিকে লালন-পালন করেছেন নিজের সন্তানের মতো। সময়ের সাথে সাথে আকৃতি বেড়েছে। চেহারা ও স্বভাবে সে এখন সত্যিই ‘টাইগার’।

    জানা গেছে, দৈর্ঘ্য নয় ফুট আর উচ্চতা সাড়ে পাঁচ ফুট গরুটির ওজন এখন ৪৪ মণ। বিশালাকৃতির এই ষাঁড় গরুটি একনজর দেখতে প্রতিদিন দুর-দুরান্ত থেকে ভিড় করছেন উৎসুক মানুষ। শুধু উৎসুক মানুষই নন, ক্রেতারাও আসছেন মিনারুলের বাড়িতে। দাম-দর করছেন বিশালাকৃতির ষাঁড় গরুটিকে কেনার জন্য।

    পবিত্র ঈদুল আযহাকে সামনে রেখে টাইগার নামের ওই গরুর দাম হাঁকা হয়েছে ৩০ লাখ টাকা। অথচ বছর খানেক আগে ১ লাখ ৪২ হাজার টাকা দিয়ে গরুটি প্রতিবেশী এক ব্যক্তির কাছ থেকে কেনেন তিনি। এখন সেই ছোট গরু খামারি মিনারুলকে স্বপ্ন দেখাচ্ছে।

    প্রতিদিন বেশ আদর-যতেœর মধ্যে রাখতে হয় টাইগারকে এমন কথা জানিয়ে খামারি মিনারুল বলেন, প্রতিদিন তিন বেলা গোসল করাতে হবে টাইগারকে। ৩ কেজি সোলা, ভুসি-ভুট্টা, খৈল মিলিয়ে প্রতিদিন প্রায় ৩০ কেজি খাবার দিতে হয়।

    এরসঙ্গে সবুজ ঘাসও খাওয়ানো হয়। খুব বেশি গরম সহ্য করতে পারে না টাইগার। সেজন্য সার্বক্ষণিক ফ্যানের বাতাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এখন কাঙ্খিত দামে বিক্রি করতে পারলেই খুশি হবেন-এমন কথাই জানালেন গরুর মালিক মিনারুল ইসলাম।

    উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা মো. মহির উদ্দিন জানান, উপজেলার মধ্যে মিনারুল নামের ওই ব্যক্তির গরুটি সবচেয়ে বড়। তিনি সম্পূর্ণ দেশীয় পদ্ধতিতে গরুটিকে লালন পালন করেছেন। গরুটির ভাল দাম পাবেন বলে প্রত্যাশা করি।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    ভিপি নুরের বিলাসী জীবন!

    ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯

    আর্কাইভ

    সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আমরা