আজ রবিবার | ১৬ ডিসেম্বর২০১৮ | ২ পৌষ১৪২৫
মেনু

স্ট্রোকের ঝুঁকি কমায় অলিভ অয়েল!

মানচিত্র স্বাস্থ্য ডেস্ক | ২১ নভে ২০১৮ | ৪:২১ অপরাহ্ণ

প্রতীকি ছবি

অলিভ অয়েল বা জলপাই তেল শুধু ত্বকের জন্য না শরীরের জন্যও দারুন উপকারি। সারা বিশ্বে এখন এই তেল সমাদৃত এর গুণের জন্য। অলিভ অয়েলের স্বাস্থ্য গুণ নিয়ে সারা বিশ্বে ৫০ বছরেরও বেশি সময় ধরে গবেষণা হচ্ছে।

গবেষণায় দেখা গেছে, বিশ্বের অন্যান্য এলাকার তুলনায় ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চলে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা অপেক্ষাকৃতভাবে কমে গেছে রান্নায় অলিভ অয়েল ব্যবহারের কারণে।

গবেষণা বলছে, যারা নিয়মিত খাবারে অলিভ অয়েল ব্যবহার করেন তাদের হৃদরোগ, উচ্চ রক্তচাপ, স্ট্রোকের ঝুঁকি অপেক্ষাকৃতভাবে কমে যায়।

স্পেনের ইউনিভার্সিটি অব লাস পালমাস ডি গ্রান ইউনিভার্সিটির এক গবেষণায় দেখা গেছে, নিয়মিত অলিভ অয়েলযুক্ত খাবার খেলে বিষন্নতার ঝুঁকি কিছুটা হলেও কমে যায়।

কোলেস্টরেল কমাতেও অলিভ অয়েল বিশেষ উপকার করে থাকে। এ কারণে কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে নিয়মিত খাদ্য তালিকায় অলিভ অয়েল রাখতে পারেন।

অলিভ ওয়েলে থাকা ভিটামিন এ, ই এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ত্বক সজীব রাখতে সাহায্য করে। ত্বকে ময়েশ্চারাইজারের কাজও করে অলিভ ওয়েল। তুলোতে সামান্য অলিভ অয়েল লাগিয়ে মুখে ১০ থেকে ১৫ মিনিট ধরে মাখুন।

এরপর কুসুম গরম পানিতে তোয়ালে ভিজিয়ে তা দিয়ে মুখ মুছে নিন। এবার শুকনো তোয়ালে দিয়ে মুখ মুছে ফেলুন। এতে ত্বকে সজীব দেখাবে।

গোসল করার পর পানির সাথে সামান্য অলিভ ওয়েল মিশিয়ে সারা শরীরে ম্যাসাজ করলে শরীরের ক্লান্তি দূর হয়। বয়স বাড়ার সাথে সাথে অনেক সময় ত্বকে বলিরেখা দেখা দেয়। নিয়মিত অলিভ ওয়েল দিয়ে ত্বকে ভালোভাবে ম্যাসাজ করলে সহজে বলিরেখা পড়ে না।

Comments

comments

x