আজ মঙ্গলবার | ২০ নভেম্বর২০১৮ | ৬ অগ্রহায়ণ১৪২৫
মেনু

সবাই মিলে দেশটাকে গড়তে হবে-সংলাপে প্রধানমন্ত্রী

মানচিত্র ডেস্ক | ০১ নভে ২০১৮ | ২:২৭ অপরাহ্ণ

ছবি-সংগৃহীত

আওয়ামী লীগ দেশের দৃশ্যমান উন্নয়ন নিশ্চিত করেছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দেশটা আমাদের সকলের। দেশের ভাগ্য পরিবর্তনে এখন সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে, সবাই মিলে দেশটাকে গড়তে হবে। বৃহস্পতিবার (১ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৭টায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনের ব্যাংকুয়েট হলে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে আওয়ামী লীগ ও ১৪ দলের সংলাপের সূচনা বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেছেন।

এর আগে, সন্ধ্যায় ৬টা ২০ মিনিট থেকে গণভবনে প্রবেশ করতে থাকেন ঐক্যফ্রন্ট এবং আওয়ামী লীগ ও ১৪ দলের নেতারা। পরে সন্ধ্যা ৭টার দিকে ব্যাংকুয়েট হলে প্রবেশ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর পরপরই সংলাপের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। প্রধানমন্ত্রী তাঁর সূচনা বক্তব্যে বলেন, আজকে এই অনুষ্ঠানে আপনার এসেছেন জনগণের ভবন এই গণভবনে আপনাদেরকে স্বাগত জানাই।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের জন্য যে আর্থসামাজিক উন্নয়নের কাজ করে যাচ্ছি এবং দীর্ঘ সংগ্রামের পথ পাড়ি দিয়ে গণতন্ত্রের অব্যাহত রেখেছি, সে প্রচেষ্টা বাংলাদেশের এই উন্নয়নের গতিধারা অব্যাহত রাখার ক্ষেত্রে বিরাট অবদান রাখবে বলে মনে করি।

এছাড়া এই দেশটা আমাদের সকলের, দেশের ভাগ্য পরিবর্তনে এখন সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে, সবাই মিলে দেশটাকে গড়তে হবে। মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া এবং দেশের সার্বিক উন্নয়ন এটাই আমাদের মূল লক্ষ্য।

তিনি বলেন, আমি এটার বিচারের ভার আপনাদের ওপর ছেড়ে দেবো। দীর্ঘ ৯ বছর ১০ মাস হতে চললো আমরা সরকারে, এই সময়ের মধ্যে দেশে কত উন্নয়ন করতে পেরেছি সেটা নিশ্চয়ই আপনারা বিবেচনা করে দেখবেন।

‘এটুকু বলতে পারি বাংলাদেশের সাধারণ মানুষ ভালো আছে তাদের ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটছে। দিনবদলের যে সূচনা করেছিলাম সেই দিন বদল হচ্ছে এটাকে আরও সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে,’— বলেন তিনি।

শেখ হাসিনা বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বাস্তবায়ন করে লাখো শহীদের রক্তের বিনিময়ে আমাদের স্বাধীনতা। আমাদের মহান নেতা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে আমরা এ স্বাধীনতা অর্জন করেছি। আজকে সেই স্বাধীনতার সুফল যেন, প্রতিটি মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছাতে পারে সেটাই আমাদের একমাত্র লক্ষ্যে। সেই লক্ষ্য নিয়েই আমরা কাজ করছি।

সংলাপে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বাম পাশে বসেছেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু। তার পাশে একে একে রয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম, স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম ও সাম্যবাদী দলের সভাপতি দিলীপ বড়ুয়া।

অন্যদিকে, শেখ হাসিনার ডান পাশে বসেছেন দলের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তার পাশে আছেন ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন ও জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) সভাপতি হাসানুল হক ইনু।

এদিকে, সংলাপের টেবিলে প্রধানমন্ত্রীর ঠিক বিপরীতে আসন পেয়েছেন ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন। তার ডান পাশে বসেছেন গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মোহসীন মন্টু। এরপর একে একে বসেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ ও মির্জা আব্বাস। তাদের পাশে রয়েছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

অন্যদিকে, ড. কামালের বাম পাশে বসেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তার পাশে রয়েছেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আবদুর রব ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান।

Comments

comments

x