আজ মঙ্গলবার | ২০ নভেম্বর২০১৮ | ৬ অগ্রহায়ণ১৪২৫
মেনু

বাংলাদেশে প্রথমবারের মত অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে অনিবাসী প্রকৌশলীদের সম্মেলনঃ কনভেনশন অব এনআরবি ইঞ্জিনিয়ার্স

প্রেস বিজ্ঞপ্তি: | ২২ অক্টো ২০১৮ | ১:৪১ অপরাহ্ণ

সারা বিশ্বে বসবাসরত করছেন অসংখ্য অনিবাসী বাংলাদেশীপ্রকৌশলী। তাঁরা কেউ বড় বড় কোম্পানীতে গুরু দ্বায়িত্বে আছেন, কেউ বিশ্বখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণা বা শিক্ষকতা করছেন, কেউ করছেন ব্যবসা। তাঁরা নিজ নিজ ক্ষেত্রে সুপ্রতিষ্ঠিত এবং তাদের সুনাম ছড়িয়ে পড়েছে সেই সব দেশে। আমরা এইসব মেধাবী প্রকৌশলীদের নিয়ে গর্ব করি কারণ তাঁরা বিদেশের মাটিতে বাংলাদেশের সুনাম উত্তরাত্তো বৃদ্ধি করে চলেছেন। আবার এই সব মেধাবী প্রকৌশলীদের মাঝে অনেকে আছেন যারা বাংলাদেশের জন্য কিছু করছেন অথবা করতে চাচ্ছেন। তাঁরা বাংলাদেশের উন্নয়নমূলক কাজে অংশগ্রহণ করতে চান, টেকনোলজি ট্রান্সফার করতে চান, নতুন নতুন আইডিয়া উপস্থাপন করতে চান। বাংলাদেশে উন্নত প্রযুক্তির নানা ধরণের প্রকল্প বাস্তবায়িতহচ্ছে। তবে এখনও বাংলাদেশ অনেক ক্ষেত্রে বিদেশী প্রযুক্তি এবং প্রকৌশলীদের ওপর নির্ভরশীল নিজেদের পায়ে দাঁড়ানোর জন্য স্ব-ক্ষমতায় টেকসই এবং লাগসই প্রযুক্তির কোন বিকল্প নেই। এই নিমিত্তে বাংলাদেশে প্রথমবারের মত অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে অনিবাসীপ্রকৌশলীদের সম্মেলনঃ কনভেনশন অব এনআরবি ইঞ্জিনিয়ার্স

এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারীর ২৬ এবং ২তারিখে ঢাকার প্যান পাসিফিক সোনারগাঁ হোটেলে।

এই সম্মেলনে আমন্ত্রন জানানো হচ্ছে সারা বিশ্বের সব অনিবাসীবাংলাদেশী বা এনআরবি প্রকৌশলীদের

একসাথে এক জায়গায় আমন্ত্রন জানিয়ে বাংলাদেশের উন্নয়নমূলককাজে কিভাবে সম্পৃক্ত করা যায় তা নিয়ে গঠনমূলক আলোচনা হবে। বিভিন্ন মন্ত্রণালয় থেকে আমন্ত্রিত সরকারের উর্ধতন  কর্মকর্তাদের সামনে তাঁরা তাদের প্রকল্প অথবা ধারণা পেশ করবেন। এই সব প্রকল্প কিভাবে বাস্তবায়ন করা যায় তা নিয়ে আলাপ হবে। আগামী দুই তিন দশকে প্রযুক্তিগতভাবে বাংলাদেশের কোন ধরণের পরিবর্তন হতে পারে, হওয়া উচিত তা নিয়ে বিশেষজ্ঞরা মতামত দেবেন। বিভিন্ন প্রাইভেটইউনিভার্সিটিতে কিভাবে এইসব প্রকৌশলীরা শিক্ষকতা করতে পারেন তা নিয়ে আলাপ হবে। তাদের এইসব মতামত, লেখা সম্মেলনের পর বই আকারে ছাপানো হবে।

এই সম্মেলনের প্রধান উপদেষ্টা হচ্ছেন শ্রদ্ধেয় জাতীয় অধ্যাপক ডঃজামিলুর রেজা চৌধুরী। সম্মানিত বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকবেন এসডিজি মুখ্য সমন্নয়কারী জনাব আবুল কালাম আজাদ। মূল প্রবন্ধ বা কী নোট দেবেন ম্যাক্স গ্রুপের চেয়ারম্যান জনাব ইঞ্জিঃ গোলাম মোহাম্মদ আলমগীর।

গত আগস্ট মাসের শেষে নিউ ইয়র্কে অনুষ্ঠিত হয় আমেরিকান এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশী ইঞ্জিনিয়ার্সে এন্ড আর্কিটেক্টস বা আবিয়া-র দ্বিবার্ষিক সম্মেলন। সেই সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন জাতীয় অধ্যাপক ডঃ জামিলুর রেজা চৌধুরী এবং একটি পর্বে কী নোট স্পীকার হিসেবে ছিলেন ম্যাক্স গ্রুপের চেয়ারম্যান জনাব ইঞ্জিঃ গোলাম মোহাম্মদ আলমগীর। তিনিই সেখানে ঘোষণা দেন যে আগামী বছর বাংলাদেশে একটি সম্মেলন হবে। তিনি সবাইকে আমন্ত্রন জানাবাংলাদেশে এসে নিজের চোখে দেখার জন্য যে কি কি ধরণেরউন্নয়নমূলক কাজ হচ্ছে। সেই আমন্ত্রনের সূত্র ধরেই এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এই সম্মেলনের একক পৃষ্ঠপোষক হচ্ছে ম্যাক্স গ্রুপ।

সম্মেলনের কনভেনর হচ্ছেন টেক্সাসের হিউস্টন থেকে ইঞ্জিঃ আজাদুলহক এবং কো কনভেনর হচ্ছেন ক্যালিফোর্নিয়ার লস এঞ্জেলেস থেকে ইঞ্জিঃ জলিল খান, পি,ই,। টেকনিকাল সেমিনার কমিটির চেয়ারম্যানহচ্ছেন

ক্যালিফোর্নিয়ার লস এঞ্জেলেসের লয়লা-মেরীমাউন্ট ইউনিভার্সিটির এসোসিয়েটড ডিন ইঞ্জিঃ ডঃ নাজমুল উলা। এই সম্মেলনকে আন্তরিকভাবে সহায়তা করছেন বাংলাদেশ সরকারের অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ থেকে অতিরিক্ত সচিব ডঃ কাজী আনোয়ারুল হক এবং এ-টু-আই আইয়ের প্রকল্প পরিচালক মোঃ মুস্তাফিজুর রহমান।  

আপাতত নিম্নে লিখিত বিষয় গুলোতে প্রকল্প, লেখা আহ্বান করা হচ্ছে। তবে বাংলাদেশের মানুষের উপকার হবে, বাংলাদেশের উন্নয়নে সহায়তা করবে এমন যে কোন প্রকল্প এই সম্মেলনে উপস্থাপন করা যাবে।

Improvement of National Transportation Network
City Planning & Development with the emphasis on Innovative City Transportation System
Smart City Solutions
Sustainable Environmental Improvement
Trade and Multinational Initiatives
Educational Development with emphasis on Skilled Professional Programs having demand in the outside world
Entrepreneurial Investment
Space Science
Nanotechnology
Machine Language, AI, Cryptocurrency, Cyber Security
Satellite & Telecommunication
Electric Vehicle Manufacturing
Power Sector

ইতোমধ্যে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, ফিলিপাইন, অস্ট্রেলিয়া, দুবাই, ফ্রান্স এবং সুইডেন থেকে ইঞ্জিনিয়াররা রেজিস্ট্রেশনকরা শুরু করেছেন। সম্মেলনে আগত এনআরবি ইঞ্জিনিয়ারদের, বিশেষ করে যারা প্রবন্ধ পাঠ করবেন এবং বক্তৃতা দেবেন, তাদের হোটেল সোনারগাঁয়ে সৌজন্যমূলকভাবে তিন দিনের থাকার ব্যবস্থা থাকবে। এই সম্মেলনের মূল আয়োজন করছে যুক্তরাস্ট্রের ব্রিজ-টু-বাংলাদেশ,ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টের দ্বায়িত্বে থাকবে এন এফেরার্স এবং সম্মেলনের ভিডিওগ্রাফি ফেসবুকে লাইভ স্ট্রীমিং করবে লাইভ-টু-ওয়েব।

বিস্তারিত জানার জন্য এই ওয়েব সাইট দেখুনঃwww.cone2019.com

Comments

comments

x