আজ রবিবার | ২২ জুলাই২০১৮ | ৭ শ্রাবণ১৪২৫
মেনু

বর্ষায় চুলের যত্ন

মানচিত্র ডেস্ক | ০২ জুলা ২০১৮ | ২:০৪ অপরাহ্ণ

প্রতীকি ছবি

প্রকৃতিতে এখন বর্ষা। গ্রীষ্মের দাবদাহের বর্ষার বৃষ্টিতে দেহমনে নিয়ে আসে পরম স্বস্তি। আর অমন বৃষ্টিতে ভিজতে কার না ইচ্ছে করে? তবে বৃষ্টির পানি চুলের জন্য কতটা ক্ষতিকর তা কিন্তু অনেকেই জানেন না। তাই বৃষ্টির দিনে কীভাবে চুলের যত্ন নিতে হবে সে বিষয়ে জেনে নিন প্রয়োজনীয় কয়েকটি টিপস।

►বৃষ্টির পানিতে চুলের জন্য ক্ষতিকর প্রচুর ময়লা থাকে, যা স্কাল্পে চুলকানিসহ খুশকির সৃষ্টি করে। যেহেতু এখন যখন-তখন বৃষ্টি পড়ে হঠাৎ করে ভিজে যেতেই পারেন, তাই বাইরে থেকে এসে সঙ্গে সঙ্গে চুল ভালো করে ধুয়ে ফেলবেন।

►বর্ষায় চুল পড়ে বেশি। খেয়াল করে দেখবেন সাধারণত বছরের অন্যান্য সময় চুল আঁচড়ালে ৭০ থেকে ১০০টি চুল স্বাভাবিকভাবেই প্রতিদিন ঝরে যায়। কিন্তু এই ঋতুতে চুল পড়ার সংখ্যা প্রতিদিন ২০০টিরও বেশি হয়। তাই ভেজা চুল আঁচড়াবেন না। চুল খুব দ্রুত শুকিয়ে ফেলার চেষ্টা করবেন আর মোটা ফাঁকা দাঁতের চিরুনি ব্যবহার করবেন। কখনোই অন্যের চিরুনি দিয়ে চুল আঁচড়াবেন না অথবা নিজের চিরুনি কাউকে ব্যবহার করতে দেবেন না, এতে ব্যাকটেরিয়া সংক্রমিত হয়ে স্কাল্পে বিভিন্ন সমস্যা দেখা দেবে।

►বর্ষায় স্কাল্প অতিরিক্ত তৈলাক্ত থাকে তাই চুলকে হেলদি রাখতে সপ্তাহে ৪-৫ দিন চুল কোনো মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। স্কাল্পের তেল চুলের গোঁড়া নরম করে দেয়। এর ফলে চুল পড়ে যাওয়ার সংখ্যাও বৃদ্ধি পায়।

►প্রাকৃতিকভাবে যেহেতু স্কাল্প একা একাই তৈলাক্ত হয় তাই চুলে আলাদা কোনো ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন। অতিরিক্ত ময়েশ্চারাইজার খুশকির সৃষ্টি করে।

►শ্যাম্পু করার পর চুলকে অবশ্যই প্রাকৃতিকভাবে কন্ডিশনিং করবেন। খুব সহজ পদ্ধতি হলো ৫০০ মিলি পানির সঙ্গে ২ টেবিল চামচ সাদা ভিনেগার মিশিয়ে শ্যাম্পু করার পরপরই ধুয়ে ফেলবেন। ভিনেগার দেওয়ার পর চুল আলাদা করে পানি দিয়ে ধোয়ার দরকার নেই। অবশ্যই কেমিক্যাল কন্ডিশনার ব্যবহার কম করবেন কারণ এই ঋতুতে এটা চুলের অনেক ক্ষতি করবে।

►যদি খুশকি আপনার স্কাল্পে আক্রমণ করেই ফেলে তাহলে অবশ্যই এন্টি ড্যানড্রাফ শ্যাম্পু ব্যবহার করবেন কিন্তু যেহেতু এ ধরনের শ্যাম্পু খুব স্ট্রং হয়, তাই চুল ধোয়ার ২ ঘণ্টা আগে আপনার পছন্দের যেকোনো তেল স্কাল্প থেকে শুরু করে চুলের আগা পর্যন্ত ম্যাসাজ করে নেবেন। কিন্তু কখনোই সারারাত চুলে তেল দিয়ে রাখবেন না। কারণ এই সিজনে স্কাল্প ময়েশ্চারাইজার গ্রহণ করতে পারে না বরং আরো ফিরিয়ে দেয় যা চুলের গোঁড়া নরম করে দেয়।

►প্রাকৃতিক নিয়মে চুলে উজ্জ্বলতা বাড়াতে চাইলে মেথি বেঁটে সারারাত পানিতে ভিজিয়ে রেখে পরে শুধু পানিটা ছেঁকে নিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। প্রতি সপ্তাহে খুব সহজ একটি হেয়ার মাস্ক ব্যবহার করুন। একটি কলা আর সঙ্গে কয়েক চামচ এভোক্যাডো একসঙ্গে মিশিয়ে চুলে ৩০ মিনিট দিয়ে রেখে পরে চুল শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন। এতে স্যাঁতসেঁতে আবহাওয়াতেও চুল খুব ঝরঝরে থাকবে। আশা করি টিপসগুলো কাজে আসবে আপনাদের বর্ষাস্নাত দৈনন্দিন জীবনে।

Comments

comments

x