আজ মঙ্গলবার | ২৩ অক্টোবর২০১৮ | ৮ কার্তিক১৪২৫
মেনু

ইন্টারভিউ দিয়ে পুলিশের চাকরি পেল বিড়াল!

মানচিত্র ডেস্ক | ২৪ মে ২০১৮ | ২:১৩ অপরাহ্ণ

ছবি- সংগৃহীত

নাম প’ফিসার ডোনাট। উচ্চতা ঠিকঠাক। গায়ের রঙ ধূসর। ইন্টারভিউ দিয়েছে যাকে বলে অসাধারন। বেশ স্মার্ট বলতে হয়। এত সব গুন যখন রয়েছে তাহলে পুলিশে চাকরি হতে বাধা কোথায়? তাই মিচিগান পুলিশে চাকরিটা পাকা করে ফেলেছে ছোট্ট বিড়াল ছানা। বিড়াল প্রজাতির ইউনিটে সার্ভিস দেবেন এই পুলিশ অফিসার।

প’ফিসার ডোনাটকে অবশ্য উদ্ধার করা হয়। তিনি এখন মিচিগান পুলিশ বিভাগের নতুন সদস্য। এই মহিলা বিড়ালছানাকে ইন্টারভিউতে তার ডান পা তুলতে বলা হয়। তিনি সেই কাজ কর্ম দক্ষতায় করে দেখান। আর ইন্টারভিউ ক্র্যাক করে পেলেন। এরপরই তাঁর চাকরি পাকা হয়ে যায়। এবং আনুষ্ঠানিকভাবে শপথ গ্রহণ করে তিনি মিচিগান পুলিসের ওই বিভাগে যোগদান করেন বলে সংবাদ মাধ্যম সূত্রে খবর।

মিচিগানের হিউমেন সোসাইটির তরফ থেকে তাকে টিডিপিতে দেওয়া হয়। এখন তিনি মিচিগান পুলিশের বিডা়লপ্রজাতির বিভাগে কর্মরত। চিফ গ্যারি মায়ের বারবার একথাই বলেছেন “আমরা সোশাল মিডিয়াকে ব্যবহার করে মানুষকে জানাতে চাইছি যে পুলিশও মানুষ। এবং আমরা আমাদের সেই দিকটাও দেখাতে চাইছি যেখানে আমরা শুধু আইন প্রয়োগেই নয় তার বাইরে গিয়েও কাজ করি।”

প্রথম প্রার্থী ব্যাজেসের ফিলাইন লিউকেমিয়া ধরা পড়ার পর প’ফিসার ডোনাটকে নিয়োগ করা হয়। ফিলাইন লিউকেমিয়া বিড়াল প্রজাতির একটি মারণ রোগ। যে রোগ খুব ছোঁয়াচে ও বাকি বাড়িল প্রজাতির মধ্যে যে রোগ দ্রুত ছড়িয়ে যায়।

পুলিশ জানিয়েছে ব্যাজেসের এই রোগ ধরা পরার পর তাঁরা খুবই দুঃখ পান। এরপর ডোনাটকে সেই বিভাগের দায়িত্ব দেওয়া হয়। যদিও “ব্যাজেস সবসময়ই তাঁদের প্রথম প’ফিসার থাকবে।” মানুষের মধ্যে পালিত পশু দত্তক নেওয়ার প্রবণতা বাড়াতে ও পালিত পশুদের উদ্ধার করতে এবং মানুষের সঙ্গে যোগাযোগ বাড়াতে এই বিডা়ল পুলিশ অফিসারকে ব্যবহার করা হবে বলে মিচিগান পুলিশ সূত্রে খবর।

Comments

comments

x