আজ বৃহস্পতিবার | ১৬ আগস্ট২০১৮ | ১ ভাদ্র১৪২৫
মেনু

ইফতারে জামের শরবত

মানচিত্র ডেস্ক | ২৪ মে ২০১৮ | ১:৪২ অপরাহ্ণ

প্রতীকি ছবি

জাম। এটি নানা দেশে নানা নামে পরিচিত, যেমন- জাম্বুল, জাম্ভুল, জাম্বু, জাম্বুলা, জাভা প্লাম, জামুন, কালোজাম, জামব্লাং, জাম্বোলান, কালো প্লাম, ড্যামসন প্লাম, ডুহাট প্লাম, জাম্বোলান প্লাম, পর্তুগিজ প্লাম ইত্যাদি।

তেলেগু ভাষায় একে বলা হয় নেরেদু পান্ডু, মালায়ালাম ভাষায় নাভাল পাজহাম, তামিল ভাষায় নাভা পাজহাম এবং কানাড়া ভাষায় নেরালে হান্নু। ফিলিপাইনে একে বলা হয় ডুহাট।

বাংলাদেশে প্রধানত দুই জাতের জাম পাওয়া জায়। জাতগুলি হলো ক্ষুদি- খুব ছোট জাত এবং মহিষে- বেশ বড় ও মিষ্টি। এটি বর্ষাকালে পাওয়া যায়। ফলের গা কালো এবং খুব মসৃণ পাতলা আবরণ দিয়ে ঢাকা। ফলের বহিরাবরণের ঠিক নিচ থেকেই গাঢ় গোলাপী রংয়ের টক মিষ্টি শাস।

জামের প্রধান ব্যবহার খাদ্য হিসেবে। টক মিষ্টি সুস্বাদু এই ফলটি বেশ জনপ্রিয়। কবিরাজী বা হেকিমী চিকিৎসায় এর কিছু ব্যবহার আছে; বিভিন্ন রোগ নিয়ন্ত্রণের জন্য বাংলাদেশ, ভারতবর্ষ, ইন্দোনেশিয়া এবং চীন-এ জামের ব্যবহার হয়ে আসছে।

জামের বীজ দিয়ে নানান রোগের আয়ুর্বেদী চিকিৎসা করা হয়, যেমন বহুমুত্র। ইউনানী এবং চৈনিক চিকিৎসাতেও এর ব্যবহার আছে। হজমের সমস্যা, উচ্চ রক্তচাপ, মাড়ির প্রদাহ ইত্যাদি রোগে জামের বীজ, ছাল ও পাতা ব্যবহৃত হয়। জাম থেকে মদ ও সিরকা তৈরি করা যায়। জামে বেশি পরিমাণে ভিটামিন এ এবং সি আছে।

তাছাড়া জাম বিভিন্ন ধরণের পুষ্টি উপাদানে সমৃদ্ধ এবং স্বাস্থ্যের জন্যও অনেক উপকারী। তাই এই রমজানে ইফতারে রাখতে পারেন জামের শরবত। সারাদিন রোজা রাখার পর ইফতারিতে এই শরবত আপনার শরীরে প্রশান্তি এনে দেবে, সেইসাথে পাবেন অনেক স্বাস্থ্যগত উপকারও। রইলো রেসিপি-

*উপকরণ
জাম ১ কাপ,
পানি ১ কাপ,
চিনি ১ টেবিল-চামচ,
লবণ আধা চা-চামচের একটু কম,
লেবুর রস ১ চা-চামচ,
কাঁচামরিচ অর্ধেক
পুদিনাপাতা-কুচি সামান্য।

*প্রস্তুত প্রণালী
জামের বীজ ছাড়িয়ে নিন। বাকি সব উপকরণ আর জাম একসঙ্গে ব্লেন্ড করে নিতে হবে। চাইলে ছেঁকে নিন অথবা না ছেঁকে নিলেও হবে। ফ্রিজে রেখে দিন ঠাণ্ডা হওয়ার জন্য। ঠাণ্ডা হলে ইফতারে পরিবেশন করুন।

Comments

comments

x