আজ বুধবার | ১৫ আগস্ট২০১৮ | ৩১ শ্রাবণ১৪২৫
মেনু

নূতন পৃথিবী

স্বপ্না ধর চৌধুরী | ২২ মে ২০১৮ | ৪:২৭ পূর্বাহ্ণ

প্রতীকি ছবি

” আজকে তোমার জন্মদিন
স্মরণ বেলায় নিদ্রাহীন।”
ফুটেছে আজও টগর চাঁপা বেল চামেলি জুঁই,
কইগো তুমি ! আজকে তুমি কবি,আজকে তুমি কই ?
ফুলের মালা গলায় দিয়ে, চেয়ে আছো ওই !
হাস্নুহানার গন্ধে মাতাল , তবে তুমি তো কই ?
হাতড়ে ফিরি খুঁজি তোমায় , মহুয়া ফুলের মউ;
মৌমাছিরা আজও ঘুরে, হাসছে ও পাড়ার বউ!
চৈতিরাতে গায় যে ওরা , গজল মালকুশ ,
তুমি তো নেই শুধু আছি মোরা ,সাতশো কোটির মানুষ ।
দুপুর বেলায় চবুতরায় , কাঁদে এখনও কবুতর ,
সেই হাওয়াতে শুনি এখনও, মাছরাঙ্গারই স্বর !
গাঁয়ের বধূঁ নোলক নাকে, তাকায় এদিক ওদিক;
দোলে টুনটুনি দোলন-চাঁপায়, উতল হাওয়ার ঝিলিক!
পিয়াল বনে লাল পলাশী, ছড়ায় আগুন ঢেউ,
খায় সাঁওতালিরা গেলাস ভরে মহুয়া ফুলের মউ!
হিজল শাখে এখনও ডাকে,” বউ গো কথা কউ ”
পলাশ ফুলে কেমন সেজেছে, সাঁওতালিয়া বউ!
এখনও ডাকে ডাহুক জল-পায়রা,ভরা বিলের কাছে,
আমরা শুনি তুমি নেই গো, সবকিছুই যে মিছে !

কাজলা দীঘির জলে আজও, ফুটেছে রঙীন কমল ,
তোমার ডাগর চোখের মণি,সাগর দীঘির নীল ।
উদাস দুপুর অলস ছায়ে, ঝিমুচ্ছে হাঁসগুলো,
ঘুম এসেছে ঘুমতী নদীর, গাও তো সে গান গুলো ?

বাঁজে বাঁশী ঐ বন উদাসী, রাখালিয়ার সুর !
গোধূলিতে ধূলোর ঝড়ে, লাল পিয়ালির নূপুর!
সন্ধ্যার শাঁখে বাজলো যখনি,মন্দিরেতে ঢং ঢং !
বন-বনানী শাল-পিয়ালি, অশোক-পলাশের রং!
ঝাউএর শাখায় নামলো আঁধার, বইলো শন্ শন্ হাওয়া !
জীর্ণ গাছের শুকনো পাতার,শব্দে আসা-যাওয়া।

তুমি তো নেই, বুঝছো কেমন ? স্বর্গ কি বহুদূর ?
সুরে-ছন্দে সাম্যের তানে, সেদিন কি সুমধুর!

তোমার উদাস বউল চাউনি, হৃদয় যে কাঁদে হায়!
একই রক্তে রাঙানো, ভাইটি একই গান গায় !
কোথায় হে বিদ্রোহী কবি,সময় হয়েছে আজ !
ভেঙ্গে গড়ো নূতন পৃথিবী, হোক না সুন্দর সমাজ!খুব

Comments

comments

x