আজ মঙ্গলবার | ২২ মে২০১৮ | ৮ জ্যৈষ্ঠ১৪২৫
মেনু

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ: সেমিফাইনালে রিয়াল-বায়ার্ন, লিভারপুল-রোমা

মানচিত্র ক্রীড়া ডেস্ক | ১৩ এপ্রি ২০১৮ | ১২:০৭ অপরাহ্ণ

প্রতীকি ছবি

এবারের উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমি-ফাইনাল নিশ্চিত করেছে ফুটবল জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ,বায়ার্ন মিউনিখ, লিভারপুল ও রোমা এফসি। এর মধ্যে ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে খেলবে রিয়াল মাদ্রিদ। আর লিভারপুলকে মোকাবেল করবে রোমা।

আজ শুক্রবার সুইজারল্যান্ডের নিওঁতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমি-ফাইনালের ড্র অনুষ্ঠিত হয়। সেমি-ফাইনালের প্রথম লেগ হবে আগামী ২৪ ও ২৫ এপ্রিল। ১ ও ২ মে হবে ফিরতি পর্ব। আগামী ২৬ মে ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে হবে টুর্নামেন্টের ফাইনাল।

এদিকে ইউরোপা লিগের ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে স্পেনের ক্লাব আতলেতিকো মাদ্রিদের বিপক্ষে খেলবে ইংল্যান্ডের দল আর্সেনাল। ইউরোপীয় ফুটবলের দ্বিতীয় সেরা এই প্রতিযোগিতায় শেষ চারের আরেক ম্যাচে মুখোমুখি হবে ফ্রান্সের ক্লাব মার্সেই ও অস্ট্রিয়ার ক্লাব সাইসবুর্গ। আগামী ২৬ এপ্রিল হবে এর প্রথম লেগ। আর ৩ মে হবে ফিরতি পর্ব। ফ্রান্সের লিওনে আগামী ১৬ মে হবে ফাইনাল।

এর আগে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ‘এইচ’ গ্রুপে টটেনহ্যাম হটস্পারের পিছনে থেকে গ্রুপ রানার্সআপ হয়ে নকআউট পর্বে ওঠে রিয়াল মাদ্রিদ। শেষ ষোলোয় ২ লেগ মিলিয়ে তারা ৫-২ গোলে হারায় ফরাসি ক্লাব পিএসজিকে। আর কোয়ার্টার-ফাইনালে ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়ন ইউভেন্তুসের মাঠে ৩-০ গোলে জেতার পর ফিরতি পর্বে ঘরের মাঠে ৩-১ গোলে হেরে বসে জিদানের দল। তবে দুই লেগ মিলিয়ে ৪-৩ গোলে এগিয়ে শেষ চারে জায়গা করে নেয় টানা দুবারের চ্যাম্পিয়নরা।

৫ বারের চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন মিউনিখ ‘বি’ গ্রুপে পিএসজির পর দ্বিতীয় সেরা দল হয়ে নকআউট পর্বে উঠেছিল। শেষ ষোলোয় দুই লেগ মিলিয়ে তুরস্কের ক্লাব বেসিকতাসকে ৮-১ গোলে হারানোর পর শেষ আটে স্প্যানিশ ক্লাব সেভিয়ার বিপক্ষে ২-১ ব্যবধানে জেতে জার্মান চ্যাম্পিয়নরা।
কোয়ার্টার-ফাইনালে সবচেয়ে বড় চমক সৃষ্টি করা রোমা ‘সি’ গ্রুপে চেলসি, আতলেতিকো মাদ্রিদ ও কারাবাখকে পিছনে ফেলে সেরা হয়ে নকআউট পর্বে উঠেছিল। শেষ ষোলোয় ইউক্রেনের শাখতার দোনৎস্কের সঙ্গে দুই লেগ মিলিয়ে স্কোরলাইন ২-২ করার পর অ্যাওয়ে গোলের সুবাদে এগিয়ে যায় ইতালির ক্লাবটি।

আর এরপরেই নিজেদের ইতিহাসে ঘুরে দাঁড়ানোর নতুন ইতিহাস গড়ে রোমা। শেষ আটের প্রথম লেগে বার্সেলোনার মাঠে ৪-১ গোলে হারের পর ফিরতি পর্বে ৩-০ গোলে জিতে যায় দলটি। দুই লেগ মিলিয়ে স্কোরলাইন ৪-৪ হলেও অ্যাওয়ে গোলের সুবাদে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমি-ফাইনালে ওঠে ১৯৮৩-৮৪ মৌসুমে ইউরোপিয়ান কাপের ফাইনাল খেলা দলটি।

‘ই’ গ্রুপের সেরা লিভারপুল শেষ ষোলোয় পর্তুগালের ক্লাব পোর্তোকে দুই লেগ মিলিয়ে ৫-০ গোলে হারায়। আর কোয়ার্টার-ফাইনালের উভয় লেগেই ম্যানচেস্টার সিটিকে হারায় ইয়ুর্গেন ক্লপের দল। দুই লেগ মিলিয়ে শেষ আটে তাদের জয় ৫-১ গোলে।

Comments

comments

x