আজ সোমবার | ২১ মে২০১৮ | ৭ জ্যৈষ্ঠ১৪২৫
মেনু

বিধ্বস্ত বিমানের আরোহী ছিলেন বৈশাখী টিভির সাংবাদিক

মানচিত্র ডেস্ক | ১২ মার্চ ২০১৮ | ১:১৬ অপরাহ্ণ

নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে (টিআইএ) ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিধ্বস্ত যাত্রীবাহী বিমানের আরোহী ছিলেন প্রধানমন্ত্রী বিটের সাংবাদিক ফয়সাল আহমেদ। তিনি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল বৈশাখীর স্টাফ রিপোর্টার ফয়সাল আহমেদ।

ফ্লাইটের যাত্রীদের তালিকা থেকেই এ বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে বলে জানিয়েছে বৈশাখী টিভির হেড অব নিউজ অশোক চৌধুরী।

তিনি জানান, সোমবার থেকে পাঁচ দিনের ছুটি নিয়েছিলেন ফয়সাল আহমেদ। তবে তিনি অফিসকে এই সফরের বিষয়ে কিছু জানাননি। পরে ফ্লাইটের যাত্রী তালিকায় নাম দেখে পাসপোর্ট নম্বর মিলিয়ে তারা বুঝতে পারেন ফয়সাল সেই ফ্লাইটে ছিলেন।

ফয়সাল আহমেদ গ্রামের বাড়ি শরিয়তপুর জেলার ডামুড্যা পৌরসভায়। বাবার নাম সামসুদ্দীন সরদার, মাতা মোসাৎ সামসুন্নাহার । তারা দুজনেই গ্রামের বাড়িতে থাকেন। ফয়সাল বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি বাহাদুর বেপারীর সর্ম্পকে ভাগিনা হন বলে জানা গেছে।

ফয়সাল আহমেদ ওই ফ্লাইটেই ছিলেন বলে ডামুড্যা পৌরসভার স্থানীয় বাসিন্দা সুমন সিকদার জানিয়েছেন। বিধ্বস্ত বিমান থেকে তার ব্যাগেজ উদ্ধার করা হলেও এখন ফয়সালের খবর পাওয়া যায়নি।

প্রসঙ্গত, আজ সোমবার দুপুরে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ছেড়ে যাওয়া উড়োজাহাজটি কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আড়াইটার দিকে অবতরণের সময় বিধ্বস্ত হয়।

বিমানটি রানওয়েতে অবতরণের সময় বিমানটির এক পাশে কাত হয়ে আগুন ধরে যায়। এতে পাশের একটি ফুটবল মাঠে গিয়ে বিধ্বস্ত হয় বিমানটি। সর্বশেষ তথ্য মতে, ৫০ জন নিহত হবার খবর পাওয়া গেছে।

বিমানটিতে ৬৭ জন যাত্রী ও ৪ জন ক্রুসহ ৭১ জন আরোহী ছিল। এর মধ্যে দুই শিশুসহ ৩৩ জন বাংলাদেশি, একজন মালদ্বীপ, একজন চাইনিজ এবং নেপালি ৩২ যাত্রী ছিলেন।

Comments

comments

x