আজ শুক্রবার | ১৫ ডিসেম্বর২০১৭ | ১ পৌষ১৪২৪
মেনু

চলন্ত ট্রেনের নিচে পড়েও বেঁচে গেলেন যুবক

পাবনা প্রতিনিধি | ২২ নভে ২০১৭ | ১:২০ অপরাহ্ণ

চলন্ত ট্রেন থেকে নামতে গিয়ে ট্রেনের নিচে পড়ে গিয়েও অলৌকিক ভাবে বেঁচে গেছেন ইকবাল হোসেন (৩৫) নামে এক যুবক। এ সময় তিনি মাথায় গুরুতর আঘাত পান। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার দুপুরে পাবনার চাটমোহর রেলষ্টেশনে। এ সময় সময় দৃশ্যটি দেখে হতবম্ভ হয়ে যান সবাই। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে চাটমোহর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি  করা হয়। ঢাকা থেকে চিলাহাটী গামী আন্তঃনগর নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনে এ দূঘটনা ঘটে। আহত ট্রেন যাত্রী ইকবালের বাড়ি রাজশাহীতে। তিনি বর্তমানে ঢাকায় বসবাস করেন।

আহত যুবকের বরাত দিয়ে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শ্বশুর বাড়িতে আসার জন্য ঢাকা থেকে চিলাহাটীগামী আন্তঃনগর নীলসাগর ট্রেনে ভাঙ্গুড়ার উদ্দেশ্যে রওনা দেন ইকবাল। দুপুর ১২ টার দিকে ট্রেনটি ভাঙ্গুড়া স্টেশন অতিক্রম করার মূহুর্তে সেখানে স্টপেজ না থাকায় পরবর্তী স্টেশন চাটমোহরে নামার প্রস্তুতি নেন তিনি। চাটমোহর স্টেশনেও ট্রেনটির স্টপেজ না থাকায় স্টেশন অতিক্রম করার মূহুর্তে সে চলন্ত ট্রেন থেকে নামার চেষ্টা করে। এমন সময় ট্রেনের গতির সাথে সে নিজেকে নিয়ন্ত্রন করতে না পেরে হাত ফসকে ট্রেনের নিচে চলে যান। সবাই ভেবেছিলেন ট্রেনে কাটা পড়েছে ইকবাল। ট্রেন চলে যাবার পর তার বেঁচে থাকা দেখে সবাই স্তম্ভিত হয়ে যান। পরে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় চাটমোহর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয় এবং শশুর বাড়ি ভাঙ্গুড়ায় খবর দেওয়া হলে সেখান থেকে তার আত্মীয়স্বজন এসে তাকে নিয়ে যান। এ সময় সবাই বলেন, ‘রাখে আল্লাহ মারে কে?’

চাটমোহর রেলস্টেশন মাষ্টার মাসুম আলি খাঁন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ‘সচেতনতার অভাবে এ দূর্ঘটনাটি ঘটেছে। জেনে শুনে ট্রেনে ওঠা উচিত ছিল। তবে এভাবে ট্রেনের নিচে পড়েও বেঁচে যাওয়া অলৌকিক ঘটনা।’

Comments

comments

x