আজ সোমবার | ২০ নভেম্বর২০১৭ | ৬ অগ্রহায়ণ১৪২৪
মেনু

গুগল লোকাল গাইড কমিউনিটি পুরস্কার পেল বাংলাদেশ

মানচিত্র ডেস্ক | ৩০ অক্টো ২০১৭ | ১:৫৩ অপরাহ্ণ

Google Photo

চলতি বছরের ‘গুগল লোকাল গাইড কমিউনিটি অ্যাওয়ার্ড-২০১৭’ অর্জন করে নিল বাংলাদেশ লোকাল গাইড কমিউনিটি। প্রতি বছর ১৬টি ক্যাটাগরিতে গুগল লোকাল গাইড অ্যাওয়ার্ড দেয়া হয়। এর মধ্যে বাংলাদেশ লোকাল গাইড কমিউনিটি জিতেছে সেরা কমিউনিটি অ্যাওয়ার্ড। বাংলাদেশের পক্ষে পুরস্কার গ্রহণ করেন বাংলাদেশ লোকাল গাইডের মডারেটর মাহাবুব হাসান ও বেস্ট স্যুভিনিয়র অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ করেন সোনিয়া বিনতে খোরশেদ।

গত  ১০-১২ অক্টোবর যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত গুগল লোকাল গাইড সামিটে এ পুরস্কার দেয়া হয়। যেখানে ২ হাজার অ্যাপ্লিকেশন থেকে বাছাই করে ৬২ দেশের ১৫০ জনকে অংশগ্রহণের সুযোগ দেয়া হয় এবং প্রায় ১৫ পেশার বিভিন্ন বিষয়ে অভিজ্ঞরা সেখানে অংশগ্রহণ করেন। তিন দিনব্যাপী এ সামিটে ছিল সামাজিক ও তথ্যপ্রযুক্তির বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে সেমিনার ও গুগল ম্যাপভিত্তিক সমাজসেবা বাড়ানোর কৌশল নিয়ে বিভিন্ন আলোচনা।

এবারের সামিটের মূল বিষয়বস্তু ছিল, আক্সেসেবিলিটিস (ফিজিক্যাল ডিজেবিলিটিসদের প্রযুক্তি খাতে কিছু করার ক্ষেত্রে তাদের প্রাধান্য, ইমেজ প্রসেসিং, আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্ট, ইউজার জেনারেটেড কন্টেন্ট) প্রতি জোর দেয়া।  সামিটের উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন গুগল মাপসের ভাইস প্রেসিডেন্ট লুইস আন্দ্রে বেরেসোসহ গুগলের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা। যেখানে দেখানো হয় গুগলের কিছু প্রজেক্ট যা আগামী বছর সবার জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হবে। তিন দিনের অনুষ্ঠানে দেখানো হয় সামাজিক মাধ্যমে কীভাবে গুগল ম্যাপ ও অন্যান্য সেবা কম সময়ে মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়া যায়। যেমন দেশভেদে তাদের কালচারাল অনুষ্ঠান, অনুষ্ঠানের স্থান, ধরন ও বিবরণ উল্লেখ করে বহির্বিশ্বের সবার সামনে তুলে ধরা হয়।

উল্লেখ্য, লোকাল গাইড হচ্ছে গুগলের ম্যাপভিত্তিক এক পরিষেবা, এর মাধ্যমে আপনি ম্যাপের বিভিন্ন স্থানের বিবরণ ও অন্যান্য সুবিধা তুলে ধরতে পারবেন। বাংলাদেশ লোকাল গাইড ২০১৩ সালের শেষদিক থেকে কার্যক্রম পরিচালনা শুরু করে। ২০১৫ গুগল লোকাল গাইড জরিপে বাংলাদেশ লোকাল গাইড সেরা ১০টি দেশের মধ্যে চতুর্থ অবস্থানে ছিল। বর্তমানে বাংলাদেশের গুগল লোকাল গাইড কমিউনিটিতে প্রায় ৮ হাজারেরও বেশি মেম্বার রয়েছে।

এদিকে প্রায় চার বছরে ৭৫টিরও বেশি মিটআপ সম্পন্ন করেছে তারা। এর মধ্যে রয়েছে কোডিং সেশন, পাবলিক টয়লেট গুগল ম্যাপ সংযোগ, বিভিন্ন দর্শনীয় স্থান ভ্রমণ ও তার ইতিহাস তুলে ধরা, ফুড ক্রল, আইওটিসহ বিভিন্ন ধরনের ওয়ার্কশপ। এছাড়া ফেসবুক ও গুগল প্লাস কমিউনিটিতে নিয়মিত গুগল ম্যাপভিত্তিক সমস্যা সমাধান দিয়ে থাকে।

 

Comments

comments

x