আজ রবিবার | ১৯ নভেম্বর২০১৭ | ৫ অগ্রহায়ণ১৪২৪
মেনু

হজ পালনে সাইকেলে লন্ডন থেকে সৌদি গেলেন তিন বাংলাদেশি

মানচিত্র ডেস্ক | ২৫ আগ ২০১৭ | ১১:৫৫ অপরাহ্ণ

লন্ডন থেকে সাইকেলে হজে যাচ্ছেন তিন বাংলাদেশি

পবিত্র হজপালন করতে সাইকেলে লন্ডন থেকে সৌদি আরবের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করে প্রায় ছয় সপ্তাহ সময়ের ব্যবধানে ৩ বাংলাদেশি বংশোদ্ভূতসহ ৯ ব্রিটিশ মুসলিম নাগরিক মদিনা পৌঁছেছেন। এই যাত্রা থেকে সংগৃহীত অর্থ সিরিয়ার যুদ্ধবিধ্বস্ত মানুষের জন্য দানের লক্ষ্যে এমনটা করেছেন বলে জানান তারা।

তাদের যাত্রার শেষ ধাপটি ছিল অত্যন্ত কঠিন। কারণ মিসর এবং সৌদি আরবের মরুভূমি তীব্র গরম ও উত্তপ্ত আবহাওয়ার মধ্য দিয়ে তাদের পাড়ি দিতে হয়েছিল। কিন্তু যখনই মদিনার মসজিদে নববি ও সবুজ গম্বুজের দিকে দৃষ্টি পড়ে তখনই তাদের দীর্ঘ পথ পাড়ি দেয়ার ব্যথা ও যন্ত্রণা ঘুচে যায়। রাইডাররা আনন্দে কেঁদে ওঠে।

তারা যখন মদিনা মুনাওয়ারায় এসে পৌঁছেন, সেখানে উপস্থিত জিয়ারতকারীরা তাদের স্বাগত জানান। আবেগ ও ভালোবাসায় জড়িয়ে ধরেন। ব্রিটিশ সাইক্লিং গ্রুপ যখন সৌদিতে প্রবেশ করেন, তখন সৌদির স্থানীয় সাইক্লিং গ্রুপ এবং তাইবা সাইক্লিস্টরা তাদের সৌদিতে চলাচলের প্রতিবন্ধকতা কাটিয়ে উঠতে সাহায্য করেন।

তারা বলেন, ‘আমাদের হজের ছফরের অন্যতম উদ্দেশ্য হলো ইসলামের সৌন্দর্য অন্যদের মাঝে ছড়িয়ে দেয়া। আমরা যেসব এলাকা দিয়ে অতিক্রম করেছি সেখানেই এ ঘোষণা দিয়েছি, ইসলাম শান্তি ও সম্প্রীতির ধর্ম। ভ্রাতৃত্বের ধর্ম।’

যাত্রা শুরু করার আগে লন্ডনের হোয়াইট চ্যাপেল রোডের ইস্ট লন্ডন মসজিদের সম্মুখে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন, সাইকেল আরোহীরা। এ সময় তারা জানান, প্রায় সাড়ে ৩ হাজার কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে মদিনায় পৌঁছাবেন। এ ব্যাপারে তারা বিভিন্ন কমিউনিটি থেকে উৎসাহ, অনুপ্রেরণা এবং বহির্বিশ্বের বিভিন্ন সংস্থার সহযোগিতা পেয়েছেন।

সাইকেল চালিয়ে ইংল্যান্ড, ফ্রান্স, জার্মানি, সুইজারল্যান্ড, ইতালি, গ্রীস, মিশর ও সৌদি আরবসহ ৮টি দেশ ভ্রমণ করে মদিনায় পৌঁছান। সফরের জন্য তাদের নির্ধারিত সময়সীমা ৬ সপ্তাহ। এ সময়ের মধ্যে প্রতিদিন প্রায় ৭০ কিলোমিটার পথ ভ্রমণ করেছেন সাইকিলিষ্টরা।

সফর থেকে সংগৃহীত অর্থ বাংলাদেশের ছিন্নমূল শিশুদের কল্যাণে এবং সিরিয়ার যুদ্ধবিধস্ত মানুষের জন্য খাদ্য, ওষুধ, মেডিক্যাল সরঞ্জাম, ত্রাণসামগ্রীর জন্য বিতরণ করা হবে। তাদের উদ্দেশ্য ছিলো ১ মিলিয়ন পাউন্ড (প্রায় ১০ কোটি ৬৩ লাখ টাকা) সংগ্রহ করে সিরিয়ায় দান করা যা নিয়ে অনেক আগেই অনলাইনে ক্যাম্পেইন চালাচ্ছিলেন তারা। বিভিন্ন দেশের তরুণ মুসলমানদের মধ্যে এ বিষয়টি বেশ সাড়া জাগিয়ে তুলেছে।

এ হজযাত্রায় বাংলাদেশি বংশোদ্ভূতরা হলেন দবির ইবনে মুবারক, সাইফুল্লাহ নাসের, আব্দুল মুকিত। এছাড়া মুহাম্মদ এহসান হোসেন, শাহেব ইউসুফ মুহাম্মদ, আবু দুজানাহ ইমরান ও তাহির হাসান আক্তার (পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত) এবং আব্দুল ওয়াহিদ ব্রিটিশ নাগরিক।

লন্ডন ত্যাগ করার সময় সফরকারীদের আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধবসহ স্থানীয় মুসলিম কমিউনিটির সদস্যরা তাদের বিদায় জানান। সফরটি আন্তর্জাতিক দাতব্য সংস্থা ‘হিউম্যান এইড’ ও ‘ওয়ান কল ট্রাভেলস’ স্পন্সর করেছে। সফর সংক্রান্ত কোনো তথ্য জানতে অথবা এ ব্যাপারে সহযোগিতা করতে চাইলে সংস্থার ওয়েবসাইটে ‘ডব্লিউ ডব্লিউ ডব্লিউ ডট হজ্ব রাইড ডট কম’থেকে বিস্তারিত জানার জন্য আহ্বান জানানো হয়েছে।

 

Comments

comments

x