আজ মঙ্গলবার | ২৬ সেপ্টেম্বর২০১৭ | ১১ আশ্বিন১৪২৪
মেনু

১৫ই আগস্ট ও ২১ শে আগস্ট উপলক্ষ্যে জর্জিয়া আওয়ামীলীগের দোয়া

মানচিত্র নিউজ | ২৩ আগ ২০১৭ | ৬:৩৯ অপরাহ্ণ

dowa

এ,এইচ রাসেল : জাতির জনক বঙ্গবন্ধূ শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে জর্জিয়া আওয়ামীলীগের উদ্যোগে । গত সোমবার ২১ আগস্ট মনসুন মসল্লা কিচেন এন্ড সুইট রেস্টুরেন্টে স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৯ টায় জর্জিয়া আওয়ামীলীগের আয়োজনে উক্ত দোয়া মাহফিলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও পরিবারের শহীদ সদস্যদের ও ২১ই আগস্ট গ্ৰেনেড হামলায় নিহতদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত মোনাজাত পরিচালনা করেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ডা. মুহাম্মদ আলী মানিক ।

জর্জিয়া আওয়ামীলীগের সভাপতি মোহাম্মদ আলী হোসেনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ হোসেনের পরিচালনায় দোয়ার সভায় উপস্থিত ছিলেন জর্জিয়া আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি যথাক্রমে দিদারুল আলম গাজী, সলিমুল্লাহ সলি, এম মাওলা দিলু সহ প্রবীণ কয়েকজন আওয়ামীনেতা। এছাড়া বর্তমান কার্যকরী পরিষদের সহ-সভাপতি যথাক্রমে হুমায়ূন কবির কাউছার, শেখ জামাল, নেহাল মাহমুদ,সৈয়দ আহমদ চুন্নু, মোস্তাক আহমেদ, সমির উদ্দিন মাষ্ঠার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক যথাক্রমে সৈয়দ মুরাদ, মোশাররফ হোসেন ,এ এইচ, রাসেল, সাংগঠনিক সম্পাদক নাহিদ, ক্রীড়া সম্পাদক মিনহাজুল ইসলাম বাদল, তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক ইলিয়াস হাসান, মুক্তিযোদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক সুভাষ চক্রবর্তী, অর্থ সম্পাদক সোহরাব হোসেন, সদস্য নজরুল ইসলাম, মাহাবুব ভুঁইয়া, কায়দ্দুজাম, উত্তম দে, বোরহান উদ্দিন প্রমুখ।

dowya

১৫ই আগস্টের কালো রাতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান ঘাতকের বুলেটে নির্মম ভাবে স্ব-পরিবারে নিহত হন। ঠিক একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটানোর জন্য ২০০৪ সালের ২১শে আগস্ট তৎকালীন বি এন পি সরকারের মদদে বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভায়ও গ্রেনেড ছোড়া হয়। জর্জিয়া আওয়ামীলীগের এই শোক সভায় সভাপতি জনাব আলী হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ রহমান সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখলেও অন্য কোনো নেতাকে এ বিষয়ে বক্তব্য প্রদান বা আলোচনায় অংশ নিতে দেখা যায়নি। অথচ সভা স্থলে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামীলীগের সহ -সভাপতি ডাঃ মুহাম্মদ আলী মানিক ,সাবেক সফল সভাপতি দিদারুল আলম গাজী ,সাবেক সভাপতি সলিলুল্লাহ সলি, সাবেক সভাপতি এম মাওলা দিলু ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক বর্তমান সহ-সভাপতি হুমাউন কবির কাউসার,বর্তমান সহ-সভাপতি শেখ জামালের মতো সু বক্তারা। যাদের কার্যক্রমে এক সময় মুখর থাকতো জর্জিয়া আওয়ামীলীগ। এছাড়া বাংলাদেশে রাজপথ কাঁপানো এক ঝাঁক নবীন আওয়ামী যুবলীগের নেতৃবৃন্দও উপস্থিত ছিলেন। এ রিপোর্ট লেখা প্রযন্ত অনেক আওয়ামী নেতৃবৃন্দ দুঃখ ও বিস্ময় প্রকাশ করেছেন আলোচনা সভায় কাউকে সুযোগ না দেয়ায়। দীর্ঘ দিন জর্জিয়া আওয়ামীলিগের মিটিংএ না আশা অনেক মুখও সেদিন উপস্থিত ছিল, যা ছিল খুবই প্রশংসনীয়। দোয়া শেষে ফটো সেশন ও রাতের ডিনার শেষে সকলে সভা স্থল ত্যাগ করেন।

Comments

comments

x