আজ বৃহস্পতিবার | ২০ জুলাই২০১৭ | ৫ শ্রাবণ১৪২৪
মেনু

যৌথ প্রযোজনার চলচ্চিত্র নির্মাণ স্থগিত

মানচিত্র বিনোদন ডেস্ক | ০৯ জুলা ২০১৭ | ১:৩৫ অপরাহ্ণ

Nabab

যৌথ প্রযোজনায় চলচ্চিত্র নির্মাণ স্থগিত করল সরকার। নতুন নীতিমালা না হওয়া পর্যন্ত দেশে স্থগিত থাকবে যৌথ প্রযোজনায় চলচ্চিত্র নির্মাণ কার্যক্রম। চলচ্চিত্র পরিবারের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকের পর রোববার বিকালে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ‘চলচ্চিত্রের সুষ্ঠু বিকাশ ও উন্নয়নের স্বার্থে’ অনুষ্ঠিত বিশেষ সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

তথ্য সচিব মরতুজা আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে চলচ্চিত্র পরিবারের প্রতিনিধিদের পক্ষে অভিনেতা ফারুক, চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট প্রস্তাব তুলে ধরেন। সভায় যৌথ প্রযোজনায় চলচ্চিত্র নির্মাণ নীতিমালা দ্রুত যুগোপযোগী ও পূর্ণাঙ্গ করে নতুন নীতিমালা তৈরিরও সিদ্ধান্ত জানানো হয়।

বলা হয়, নতুন নীতিমালা না হওয়া পর্যন্ত যৌথ প্রযোজনায় চলচ্চিত্র নির্মাণ সম্পর্কিত কার্যক্রম স্থগিত থাকবে। এ ছাড়া দেশে নির্মিত চলচ্চিত্রের জন্য চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশনের (এফডিসি) তত্ত্বাবধানে ৫০টি এইচডি প্রজেক্টর মেশিন কিনে সিনেমা হলগুলোর প্রজেকশন কার্যক্রমে যুক্ত করা হবে। সভার একটি সূত্র জানায় এ সব সিদ্ধান্তগুলো সর্বসম্মতভাবে গৃহীত হয়।

বৈঠকে বাংলাদেশ টেলিভিশনের মহাপরিচালক এসএম হারুন-অর-রশীদ, তথ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন ও চলচ্চিত্র) মো. মনজুরুর রহমান, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তপন কুমার ঘোষ, যুগ্ম সচিব মো. ইউছুব আলী মোল্লা, চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান মো. জাকির হোসেন, উপসচিব শাহীন আরা বেগম, পরিচালক দেলোয়ার জাহান ঝন্টু, মুশফিকুর রহমান গুলজার, বদিউল আলম খোকন, প্রযোজক খোরশেদ আলম খসরু, অভিনেতা রিয়াজ ও জায়েদ খান উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ-ভারত যৌথভাবে চলচ্চিত্র নির্মাণের বিপক্ষে শুরু থেকেই সরব চলচ্চিত্র পাড়ার বড় একটি অংশ। সম্প্রতি এ আন্দোলন আরো তীব্র হয় যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত শাকিব খান অভিনীত নবাব ও জিত অভিনীত বস-২ মুক্তি নিয়ে। চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট ১৪টি সংগঠন নিয়ে তৈরি হয় চলচ্চিত্র ঐক্যজোট।

Comments

comments

x