শনিবার ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

শনিবার বিদায় নেবে ‘বর্ষাকাল’

  |   বুধবার, ১১ অক্টোবর ২০২৩   |   প্রিন্ট   |   45 বার পঠিত

শনিবার বিদায় নেবে ‘বর্ষাকাল’

সংগৃহীত ছবি

অতীতে আষাঢ়-শ্রাবন ছিল ভরা বর্ষার মৌসুম। তবে সেই দিন বদলে গেছে। এখন শরতকালেও থাকছে দেশজুড়ে তুমুল বৃষ্টি। আশ্বিনের শেষভাগে এ বছর এত বৃষ্টি অভাবনীয়। এ বছর শরতে এসে রেকর্ড বৃষ্টিপাত হয়েছে। আবহাওয়া অধিদপ্তরের হিসাবে, অক্টোবরের শুরুতে, মৌসুমি বায়ুর বিদায়লগ্নে রাজধানীসহ দেশের প্রায় সব এলাকায় প্রবল বৃষ্টি হয়েছে। টানা বর্ষণে রাজশাহী নগরীর পরিণত হয়েছিল ছোটখাটো নদীতে। ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জে অর্ধশতাব্দীর মধ্যে বৃষ্টির সর্বোচ্চ রেকর্ড হয়েছিল।

এই অক্টোবরেই ২৪ ঘণ্টায় কিশোরগঞ্জের নিকলীতে ৪৭৬ মিলিমিটার এবং ময়মনসিংহে ৩৮১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত নথিবদ্ধ হয়েছে। তবে মৌসুমী বায়ু সরতে শুরু করেছে। আবহাওয়াবিদ ড. আবুল কালাম মল্লিক জানান, বৃষ্টিবাহী দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু বিদায় নিতে শুরু করেছে। ১৫ অক্টোবরের মধ্যেই বাংলাদেশ থেকে বিদায় নেবে। দেশের অধিকাংশ এলাকায় শরতের আকাশ উদ্ভাসিত হয়েছে। তবে আগামীকাল থেকে দুই দিন আরেক দফা বিদায়ী দাপট দেখিয়ে শনিবার বিদায় নেবে বর্ষা। এ সময়ে রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি বর্ষণ হতে পারে। এছাড়া রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

 

ড. আবুল কালাম মল্লিক আরো বলেন, ভ্যাঁপসা গরমের প্রবণতা থাকতে পারে চলতি মাসজুড়েই।আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে তাপমাত্রা ক্রমাগত কমে শীতের আমেজ সৃষ্টি হতে পারে। নভেম্বরের মাঝামাঝি জেঁকে বসবে শীত। আবহাওয়াবিদ বজলুর রশীদ বলেন, এখন মৌসুমী বায়ু উপকূলের দিকে সরতে শুরু করেছে। তবে ১২ অথবা ১৩ অক্টোবরের পর আরেক দফা বৃষ্টির দাপট শেষে বৃষ্টিপাত বিদায় নেবে। অক্টোবরের ১৫ তারিখের পর সারাদেশের আকাশ পরিষ্কার হয়ে যাবে। বাংলাদেশের আবহাওয়া অনুযায়ী মাঝে মাঝে লঘুচাপ বা নিম্নচাপের প্রভাবে বৃষ্টি হতে পারে। এটাও স্বাভাবিক অবস্থা।

বাড়তে পারে বৃষ্টি, তাপপ্রবাহ কমার পূর্বাভাস

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, গতকাল ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশের অধিকাংশ জেলায় কোনো বৃষ্টিপাত হয়নি। মাত্র ১১ টি স্থানে বৃষ্টি হয়েছে। এর মধ্যে সর্বোচ্চ সৈয়দপুরে ১১২ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এ ছাড়া দিনাজপুরে ৭০, রংপুরে ৫৮ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। সারা দেশে আজ দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। এদিকে এই অক্টোবর মাসে কেন অস্বাভাবিক বৃষ্টি এবং দেশের কিছু অঞ্চলে কয়েক দশকের মধ্যে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে-এর পেছনে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর তিনটি কারণ উল্লেখ করেছে।

এগুলো হলো-বায়ুম্ললে অতিরিক্ত জলীয় বাষ্প এবং বায়ু; প্রচুর পরিমাণে মেঘ জমে থাকা এবং ইন্ডিয়ান ওশানডিপোল এর বিকাশ, যা ‘ইন্ডিয়ান নিনো’ নামেও পরিচিত।

Facebook Comments Box

Posted ৮:৩৭ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, ১১ অক্টোবর ২০২৩

manchitronews.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক
এ এইচ রাসেল
Contact

5095 Buford Hwy. Atlatna Ga 30340

17709121772

deshtravels7@gmail.com

error: Content is protected !!