শুক্রবার ১৯শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দুই অধিনায়ক বললেন, আমরা কেউ মারামারি করিনি

  |   শনিবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২৩   |   প্রিন্ট   |   73 বার পঠিত

দুই অধিনায়ক বললেন, আমরা কেউ মারামারি করিনি

সংগৃহীত ছবি

চলমান সেলিব্রিটি ক্রিকেট লিগে নিজেদের শেষ ম্যাচে গতকাল রাত দশটার দিকে মিরপুর ইনডোর স্টেডিয়ামের ক্রিজে নেমেছিলেন মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ ও দীপঙ্কর দীপনের টিম। খেলতে নেমে দুই দলের মাঝে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিয়ে আজ শনিবার সন্ধ্যায় আয়োজকদের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সেখানে বক্তব্য দেন দুই দলের অধিনায়ক।

এসময় পরিচালক মোস্তফা কামাল রাজ বলেন, ‘আপনার সবাই জানেন, গতকাল একটা অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটেছে। এটার জন্য ব্যাক্তিগতভাবে আমি লজ্জিত। এই ঘটনার সঙ্গে আমার টিম থেকে যারা জড়িত তাদের জন্যও আমি লজ্জিত। এই ঘটনার সঙ্গে যারা জড়িত তাদের চিহ্নিত করে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা করা হয়েছে। যেহেতু এটা আমাদের পারিবারিক বিষয় তাই এটা আমরা ইন্টারনাল সমাধান করেছি।’

গতকালের এই ঘটনাকে মারামারি বলতে নারাজ দীপঙ্কর দীপন। তারা কেউ মারামারি করেননি বলেও উল্লেখ করেই তিনি।

দীপঙ্কর দীপন বলেন, ‘গতকালের এই ঘটনাটাকে আপনারা মারামারি বলবেন না। এখানে সেলিব্রেটিদের মারামারি হয়নি। কিছু মানুষ এখানে এসে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করেছে। আপনার ভিডিও ফুটেজে দেখলে বুঝবেন এখানে আমাদের দুই দলের কেউ এই ঝামেলায় জড়ায় নি। মাত্র ৫ থেকে ৬ জনের হামলা এটা। পড়ে তাদের সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। সরিয়ে ফেলার জন্য দুই দলই সহযোগিতা করেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমার দলের খেলোয়াড় অভিনেতা মনোজ প্রামাণিককে মাঠে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়েছে। পরে তিনি বাইরে তার গাড়িতে গিয়ে বসেছিলেন। পরে আমার কথা বলে তাকে মাঠে আসতে বলা হয়। কিন্তু তিনি গাড়ি থেকে বের হননি।’

এই পরিচালক মনে করে, ‘এই আয়োজনে কিছু ত্রুটি ছিল, নিরাপত্তার কিছুটা অভাব ছিল, বহিরাগতদের ঢোকা নিয়ে সমস্যা ছিল। এই বিষয়গুলোকে আমার সংস্কার করার কথা বলেছি। কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে আমাদের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন। আশাকরি এমনটি আর কখনো ঘটবে না।

প্রসঙ্গত, গ্রুপ পর্বের দ্বিতীয় দিনে (২৯ সেপ্টেম্বর) মোস্তফা কামাল রাজের গিগাবাইট স্কোরারস ও দীপংকর দীপনের দল রানার ফাস্টিসের খেলা চলাকালে মাঠে থাকা তারকাদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। ম্যাচটি শেষ হওয়ার পর তা আরও বাড়ে, এক পর্যায়ে মারামারিতে রূপ নেয়। এতে আহত হয়ে রাজধানীর পঙ্গু হাসপাতালে (জাতীয় অর্থোপেডিক্স হসপিটাল) ভর্তি হন ৬জন। ওই ম্যাচে মোস্তফা কামাল রাজের গিগাবাইট স্কোরারস ছয় ওভারে সংগ্রহ করেছিল ১১৯ রান। প্রতিপক্ষ দীপংকর দীপনের রানার ফাস্টিস দ্বিতীয় ইনিংসে নির্ধারিত ওভারে ১১২ রান করতে সক্ষম হয়। ৭ রানে ম্যাচটি জিতে গিগাবাইট স্কোরারস। এরপরই মারামারির সূত্রপাত।

Facebook Comments Box

Posted ৭:০২ অপরাহ্ণ | শনিবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২৩

manchitronews.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক
এ এইচ রাসেল
Contact

5095 Buford Hwy. Atlatna Ga 30340

17709121772

deshtravels7@gmail.com

error: Content is protected !!